হাজীগঞ্জে শিশু শিক্ষার্থী বলাৎকারে শিক্ষক আটক

চাঁদপুর খবর রির্পোট: শিশু শিক্ষার্থী বলাৎকারের ঘটনায় হাফেজ ইসমাঈল হোসেন নামের এক মাদরাসা শিক্ষক আটক করেছে।
ঘটনাটি চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার হাটিলা পূর্ব ইউনিয়নের মহিউস সুন্নাহ ফয়েজিয়া মাদরাসায় ঘটে।

নির্যাতিত শিশুটি ও ইসমাঈল একই মাদ্রাসার শিক্ষক/ শিক্ষার্থী। আটককৃত ইসমাইল হোসাইন কুমিল্লা জেলার বরুড়া থানাধীন ভবানীপুর ইউনিয়নের টুইন্নাবাড়ী এগার গ্রামের মো. আ. রহিমের ছেলে।

পুলিশ জানায়, আটকের পরের দিন বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) ইসমাঈলকে চাঁদপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বলাৎকারের শিকার মাদরাসা ছাত্রকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে মেডিকেল চেকআপ করা হয়েছে।

পুলিশ আরো জানায়, নাজেরা বিভাগের শিক্ষক হাফেজ ইসমাইল হোসাইন তাকে শিশুটিকে ভয় দেখিয়ে কয়েকবার বলাৎকার করে। শিশুটি মঙ্গলবার ছুটিতে বাড়ীতে গিয়ে আর মাদরাসায় না আসতে চাইলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদে সে শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে।

পরে স্থানীয়রা শিক্ষককে আটক করলে অভিযুক্ত শিক্ষক বলাৎকারের কথা স্বীকার করলে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়। এ ঘটনায় বলাৎকারের শিকার শিশুর বাবা ইকবাল হোসেন হাজীগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। যার মামলা নং ৯। হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ আব্দুর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সম্পর্কিত খবর