মতলব উত্তরে ব্যবসায়ীর পায়ের রগ কেটে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা

স্টাফ রিপোর্টার : মতলব উত্তর উপজেলার বড় ঝিনাইয়া গ্রামের মৃত্যু মুকবুল হোসেন প্রধানের ছেলে ব্যবসায়ী ইদ্রিছ প্রধানের পায়ের রগ কেটে দিয়েছে কয়েকজন সন্ত্রাসী।
এ সময় তার কাছে থাকা নগদ ৪২ হাজার ৩৫০ টাকা ও ২ভরি ওজনের ১টি স্বর্নের চেইন ছিনিয়ে নিয়েছে বলে জানান ব্যবসায়ী ইদ্রিছ প্রধান।

শুক্রবার রাত অনুমানিক ৭.৪৫ মিনিটের দিকে পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের বড় ঝিনাইয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
আহত অবস্থায় নোঃ ইদ্রিছ প্রধানকে মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

ইদ্রিছ প্রধান জানান, আমি ব্যবসার পাশাপাশি সামাজিক কর্মকান্ডে জড়িত হওয়াকে কেন্দ্র করে স্থানীয় মোঃ রাজিব, মোঃ রাসেল মিয়া প্রকাশ বিল্লাল, মোঃ আশরাফুল প্রকাশ দিপুসহ কয়েকজন সন্ত্রাসী প্রায়ই আমাকে হুমকি দিয়ে আসছে। আমি যেন সামাজিক কোন কর্মকান্ডে জড়িত না হই, আমি যেন মাদকের বিরুদ্ধে কোন কথা না বলি।

তারই ধারাবাহিকতায় বড় ঝিনাইয়া জামে মসজিদে আহলে হাদিসের মৌলভী নিয়োগ করার চেষ্টা করে, আমি বাধা প্রদান করি।
পরর্বতী সময়ে আমার বসত ঘর হইতে নামাজ পড়ার জন্য বড় ঝিনাইয়া জামে মসজিদের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেই ঘটনাস্থলে পৌছা মাত্রই পূর্ব হতে ওৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা আমাকে পেছন থেকে ঝাপটে ধরে এলোপাথারীভাবে কিল, ঘুষি ও লাথি মারে আমাকে মারধর শুরু করে। তাদের হাতে থাকা ছুরি দিয়া আমার বাম পায়ের গোড়ালীর পিছনের রগ কেটে জখম করে। হাতে থাকা ধারালো চাপাতী দিয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার গলায় পোচ দেওয়ার চেষ্টা করে আমি আমার বাম হাত দিয়ে প্রতিহত করি, চাপাতীর আঘাত আমার বাম হাতের কব্জির উপরে লাগে হাতের কব্জিও কেটে যায়। আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে আমার মাথাও শরীরের বিভিন্ন অংশে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে জখম করে।

এ বিষয়ে মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আলমগীর হোসেন রনি বলেন, ঝিনাইয়া গ্রামে ব্যবসায়ীর উপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে, একজন আসামীকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

সম্পর্কিত খবর