চাঁদপুরে পুলিশের ওপর হামলায় ৭৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার : চাঁদপুরে ইলিশ কেনাবেচার সময় মাছসহ তিন ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়ার সময় হামলার ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন পুলিশের দুই সদস্য। এ ঘটনায় ২৯ জনের নাম উল্লেখ ও ৪০-৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় মামলা করেছে পুলিশ।

শনিবার দুপুরে গ্রেফতার তিনজনকে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। গ্রেফতাররা হলেন- সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর মডেল ইউনিয়নের বহরিয়া কোটারাবাদ এলাকার মো. শাহীন (৩৮), মো. বিল্লাল (২৪) ও মো. আবদুল গফুর (৩৫)।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চাঁদপুর সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক হুমায়ুন কবির বলেন, ২৮ অক্টোবর ভোরে সদর উপজেলার বহরিয়া এলাকায় অভিযান চালায় মডেল থানার একটি চৌকস দল। এ সময় শাহীন, বিল্লাল ও গফুর নামে তিন ব্যাক্তির কাছ থেকে ৪০ কেজি ইলিশ ও নগদ ২৯ হাজার ১০০ টাকা উদ্ধার করা হয়। পরে মাছসহ আটকদের ঘটনাস্থল থেকে নিয়ে যাওয়ার সময় অজ্ঞাতনামা আসামিরা পুলিশের ওপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ৯ রাউন্ড শটগানের গুলি ছুড়ে। তখন আহত হন দুই পুলিশ সদস্য।

মা ইলিস রক্ষা অভিযানে চাঁদপুর পুলিশ পুলিশ সুপারের নির্দেশে মৎস্য ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হয়। চাঁদপুর সদর উপজেলার লক্ষীপুর ইউনিয়নের বহরিয়া সাখুয়া খাল ও লক্ষ্মীপুর আশ্রয়ন প্রকল্পের মেঘনা নদীর পাড়ে সবচেয়ে বেশি ইলিশ বেচাকেনা হয়। সেই সংবাদ এর ভিত্তিতে খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালায়।

বহরিয়ায় পুলিশের উপর হামলার ঘটনার খবর পেয়ে চাঁদপুর সদর উপজেলার ভূমি কর্মকর্তা পুলিশের আরেকটি টিম নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে উপস্থিত হন।

এই ঘটনায় বহরিয়া এলাকায় থমথমে ভাব বিরাজ করছে। তবে পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় যারা জড়িত রয়েছে তাদেরকে চিহ্নিত করে খুব দ্রুত গ্রেপ্তার করা হবে বলে জানায়।

চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শেখ মুহসীন আলম বলেন, হামলার ঘটনায় গ্রেফতার আসামিদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

সম্পর্কিত খবর