কচুয়ার প্রসন্নকাপ উচ্চ বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ

কচুয়া প্রতিনিধি : সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপি বলেছেন- একটি দেশ, একটি জাতির অগ্রগতির মূল চালিকা শক্তি হলো শিক্ষা। আওয়ামী সরকার শিক্ষাক্ষেত্রের প্রসার ও জনগণকে শতভাগ শিক্ষার আওতায় নিয়ে আসার জন্য নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। শিক্ষার মাধ্যমেই পরিবর্তন সম্ভব এবং সেই পরিবর্তনের মাধ্যমেই স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়া সম্ভব হবে। শিক্ষার্থীরা শিক্ষার আলোয় আলোকিত হয়ে এ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সরকার সেই সব উদ্যোগ বাস্তবায়নের জন্য কাজ করছেন। মঙ্গলবার দুপুরে কচুয়ার প্রসন্নকাপ উচ্চ বিদ্যালয় ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অভিভাবক সমাবেশ ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

তিনি আরো বলেন, এ বিদ্যালয়ে কম্পিউটার ল্যাব ও বিজ্ঞানাগার স্থাপন করা হবে। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ল্যাব ও বিজ্ঞানাগারের সামগ্রী ব্যবহার করে দক্ষতা অর্জন করে ডাক্তার ও ইঞ্জিনিয়ার হয়ে এ এলাকাকে প্রসারিত করবে। আপনারা প্রসন্নকাপ-কান্দিরপাড় রাস্তার পাকাকরণের প্রস্তাব রেখেছেন, জনগনের চলাচলের সুবিধার্থে ইতোমধ্যে রাস্তাটি পাকাকরণ করার জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। আওয়ামী সরকার উন্নয়নের সরকার। দেশের উন্নয়নে আওয়ামী সরকারের বিকল্প নেই। তাই আপনারা আগামি জাতীয় নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে সমর্থণ দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়যুক্ত করবেন।

ইউপি চেয়ারম্যান মো. আলমগীর হোসেনের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রহমান ভূঁইয়ার পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুলতানা খানম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আকতার হোসেন ভূঁইয়া, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শামসুদ্দিন মুন্সী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাচ্ছেল হোসেন খান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বিল্লাল হোসেন পাটওয়ারী, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সৈয়দ রবিউল ইসলাম রাসেল, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিবাশ চন্দ্র গোপ, স্থানীয় অধিবাসী সাহেব আলী মাস্টার, ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. মোস্তফা প্রধান, ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সভাপতি মোস্তফা কামাল, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোখলেছুর রহমান মেম্বার, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী নাজমা আক্তার প্রমুখ।

সমাবেশের পূর্বে ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপি প্রসন্নকাপ উচ্চ বিদ্যালয়ের চারতলা একাডেমীক ভবনের উদ্বোধন ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একাডেমীক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষক, অভিভাবক ও দলীয় নেতাকর্মীসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সম্পর্কিত খবর