চাঁদপুরে ৩ ছিনতাইকারী এক যুবককে অচেতন করে সর্বস্ব লুট

শওকত আলী : চাঁদপুর শহরের চৌধুরীঘাটস্থ ফেরীঘাটের নিকটে ৩ ছিনতাইকারী দেশীয় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে গ্রামের সহজসরল গ্রাম্মো এক যুবক আরিফ হোসেন প্রধানিয়া (২৩)কে বেদম ভাবে পিটিয়ে আহত করেছে। তারা যুবকের কাছে থাকা সর্বস্ব ছিনিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় চাঁদপুর সদর মডেল থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযোগের পর আজ শনিবার(৮জুলাই) শেষ বিকেলে চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জের নিদের্শে মডেল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এলাকাবাসী জানান,ঘটনাস্থলে বিভিন্ন স্থানে সিসি ক্যামেরা রয়েছ্, পুলিশ সে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে ব্যবস্থা গ্রহন করলে অপরাধী ছিনতাইকারীদের আটক করে আইনের আওতায় আনা সম্বব হবে।

ঘটনাটি ঘটেছে,গতকাল শুক্রবার(৭জুলাই) রাত অনুমান সাড়ে ১২টায় শহরের চৌধুরী ঘাট এলাকার পুরানবাজার কলেজের যাওয়া প্রবেশের পথ ফেরীঘাটের নিকটের আবাসিক হোটেল গার্ডেনের নিকটের গল্লিতে।

তবে চাঁদপুর শহর বাসী থেকে বিভিন্ন সময়ে জানা তথ্যের ভিত্তিতে জানা যায়,চাঁদপুর শহরে ইদানিং কালে চুরি ছিনতাইয়ের মত ঘটনা গঠছে। শহরের বিভিন্ন স্থানে রাতের আধারে এ ধরনের ঘটনা ঘটে চলছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

থানার অভিযোগ ও যুবকের কাছে প্রাপ্ত খবর থেকে জানা গেছে,চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ উপজেলার উত্তর বাকিলার ছেংগাতলী দেওদং জয়দী প্রধানিয়া বাড়ির মো: দেলোয়ার হোসেন প্রধানিয়ার সহজসরল একে বারে বোকা প্রকৃতির ছেলে আরিফ হোসেন প্রধানিয়া। সে গত কয়েকদিন পূর্বে বাড়িতে মায়ের সাথে পারিবারিক কলহের কারনে রাগ করে বাড়িতে তার জমা করা ১০ হাজার টাকা নিয়ে কাউকে না বলে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি দিয়ে বাড়ি থেকে বেড় হয়ে যায়। পরে ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে ঘুরে তার কয়েকদিন কেটে যায়।

হঠাৎ করে গতকাল শুক্রবার মায়ের কথা মনে পড়ে যায় আরিফের। তখন সে ঢাকা থেকে রাত ৮টায় লঞ্চ যোগে চাঁদপুরের উদ্দের্শে রওনাদিয়ে শুক্রবার পৌনে ১২টায় চাঁদপুর এসে পৌছে। সেখান থেকে সে তার মায়ের জন্য (মা’হোসনে আরা বেগমের পছন্দ কাঠাল) একটি কাঠাল কিনার জন্য শহরের চৌধুরীঘাটস্থ কাঠালের আড়তে আসে। সে আসার পর হোটেল গার্ডেনের সামনে দাড়িয়ে মায়ের জন্য কাঠাল দেখছিল।

এ বিষয়ে আরিফ হোসেন জানান, সেখানে দাড়ানো ৩ যুবক ছিনতাইকারীর মধ্য থেকে এক ছিনতাইকারী তাকে বলে ছোট ভাই কি জন্য এখানে এসেছো। এরই মধ্যে অন্য যুবক ছিনতাইকারীরা তাকে জোর পূর্বক টেনে অন্ধকারে নিয়ে তাকে বেদম ভাবে মাথায় ও শরীরের বিভিন্নস্থানে আঘাত করে এবং এক পর্যায়ে পিটিয়ে আহত করে,তাকে নেশা জাতীয় দ্রব্যপান করিয়ে তাকে অচেতন করে ফেলে।

এ সময় ছিনতাইকারী চক্ররা তার কাছে থাকা নগদ প্রায় ৫ হাজার টাকা, ১টি মোবাইল সেট,১টি মোবাইল ঘড়ি ও সাথে থাকা মালামাল ছিনিয়ে নিয়ে তাকে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। এ ঘটনা পর রাতেই আহত যুবকের জ্ঞান ফিরে আসে। পরে সে সেখান থেকে রাস্তায় এসে হাউমাউ করে কাঁদতে থাকে এবং ঘটনাটি এলাকাবাসীকে জানালে কয়েকজন ব্যবসায়ী তাকে নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে সেখানে কাউকে পায়নি। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন শহরের নূরম্যানশনের নাইট গার্ড মো: সেলিম গাজী।

সে ঘটনা শুনে আহত ও অধ্য অচেতন আরিফ হোসেনকে চাঁদপুর সরকারী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়ার ব্যবস্থা করেন বলে জানা যায়। পরে জানা যায়, নূরম্যানশনের নাইট গার্ড মো: সেলিমের সহায়তায় এ বিষয়টি নিয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় ভুক্তভোগী যুবক আরিফ হোসেন একটি অভিযোগ করেন বলে জানা গেছে ।

এ বিষয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো: শেখ মুহসিন আলম জানান,ঘটনা সম্পর্কে অবগত হয়েছি। তবে এ বিষয়টি নিয়ে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

একই রকম খবর